1. admin@bbcnews24.news : admin :
এলাকাবাসির নিজ উদ্যোগ ও অর্থে চলছে পাগলার কুড়ার বাঁধের কাজ - BBC NEWS 24
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বকশীগঞ্জ বিপুল সংখ্যক কর্মীসমর্থক নিয়ে লিফলেট বিতরণ করেন -মেয়র নজরুল পরিকল্পনা মন্ত্রীর নির্দেশে নান্দাইলে যানজট নিরসনে উচ্ছেদ হচ্ছে অবৈধ স্থাপনা সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে আ.লীগ নেতাকর্মীদের সাথে আনন্দ উৎসব ও মতবিনিময় মেলান্দহে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড আয়োজনে মতবিনিয়ন সভা অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান এর মতবিনিময় ভালুকায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অফিসে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ মিরসরাইয়ে দুই ইটভাটাকে সাড়ে ৯ লাখ টাকা জরিমানা ভালো বই যে কোন সময় যে কোন মানুষকে আমূল বদল দিতে পারে : আর.সি.পাল শেরপুরে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ১৯ শিক্ষককে অব্যাহতি, ২০ পরীক্ষার্থী বহিস্কার

এলাকাবাসির নিজ উদ্যোগ ও অর্থে চলছে পাগলার কুড়ার বাঁধের কাজ

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ৩৮৫ বার পঠিত

মোঃ নুরনবী সরকার,স্টাফ রিপোর্টার কুড়িগ্রামঃ কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার বামনডাঙা ইউনিয়নের এলাকাবাসী নিজ উদ‍্যোগে তৈরি করছে সরক। প্রমত্তা দুধকুমার নদী,ইউনিয়নটিকে ভাগ করেছে দুভাগে।যার এক ভাগ পশ্চিম পাশে আর একভাগ পুর্বপাশে।ফলে মোট জনসংখ্যার বড় একটি অংশ পরে যায় পুর্ব পাশে।

ইউনিয়ন পরিষদ সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা সমুহ রয়ে যায় নদীর পশ্চিম দিকে।পুর্বদিকের মানুষকে নদী পাড় হয়ে যেতে হয় প্রয়োজনীয় কাজের জন্য।পুর্ব অংশের আরো পুর্বে একটা বড় নালা বা শাখা নদী।যার নাম পাগলার কুড়া।বর্ষা এলে বড় নদীতে মিশে হয়ে যায় বড় নদী।তখন এক অংশ থাকে পাগলার কুড়ার পশ্চিম পাশে আর এক অংশ থাকে পুর্ব পাশে।ফলে কয়েক ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে এখানকার মানুষ।জনদুর্ভোগ আর পানি বন্দির কবলে পড়ে এই মানুষগুলো।বাঁধাগ্রস্ত হয় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

প্রয়োজনীয় চাহিদা মিটাতে যেতে হয় পার্শবর্তী থানার কচাকাটা বাজারে।তাছাড়া পাগলার কুড়া থেকে সরক পথে কচাকাটা বাজার সহজে যাতায়াত করা ও কাছাকাছি হয়।তাই এলাকাবাসী মিলে নিজেদের প্রয়োজনে তৈরি করছে সরক।চলছে মাটি ভরাটের কাজ।সরেজমিনে দেখা যায়,পাগলার কুড়া এখন শুকিয়ে বালুময়।কোথাও পানি কোথাও শূকনো।আর এই সময়টা কাজের উপযোগী।আসন্ন বর্ষা মৌসুমে পানি আসার আগেই কাজ শেষ করতে হবে।কথা হয় বেশ কয়েকজন এলাকাবাসী ও উদ‍্যোগতার সাথে।

জানান প্রয়োজনের তুলনায় অর্থ সংকটের কথা।তারা বলেন,এই বাঁধটি তৈরি হলে এলাকার অনেক সমস‍্যার সমাধান হবে।যোগাযোগ,চিকিৎসা,শিক্ষা ও জীবন যাত্রার মান বাড়বে।তাই আমরা সকলে মিলে এই কাজ করছি।যা ব‍্যায়বহুল ও কষ্টসাধ্য।তাই জনপ্রতিনিধি ও সরকারের সহযোগিতা পেলে দ্রুত সমস্যা সমাধান ও বাঁধের কাজটি সম্পন্ন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Shakil IT Park