1. admin@bbcnews24.news : admin :
চট্টগ্রামে প্রতারণার শিকারে নিঃশ্ব হয়ে নিরাপত্তাহীনতায় হোসনে আরা পারুল - BBC NEWS 24
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:০২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নান্দাইলে কলেজ ছাত্র বাপ্পি হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট অগ্রণী ব্যাংক সিলেট অঞ্চলের কমিটি গঠন সাধারণ সম্পাদক হালুয়াঘাটের আশরাফুল কবিতা- আত্নহত্যা শেরপুর সরকারি কলেজে ওরিয়েন্টেশন ক্লাস অনুষ্ঠিত সাবেক ছাত্রনেতা জানে আলম রোমেন এর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সেবক” চট্টগ্রাম জেলা শাখা কতৃক ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ সনদপত্র বিতরণ সীতাকুণ্ডে পাঁচ হাজার টাকার জন‍্য চালক হত‍্যা উত্তরায় শীতবস্ত্র বিতরণে ৫২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সালাম ও সম্পাদক নজরুল

চট্টগ্রামে প্রতারণার শিকারে নিঃশ্ব হয়ে নিরাপত্তাহীনতায় হোসনে আরা পারুল

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : রবিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ৪২৮ বার পঠিত

কে এম রাজীব : পৃথিবীতে কোনো ব্যক্তি যেমন অপরাধী কিংবা দোষী হয়ে জন্মায় না, তেমনি সমাজে যাদের আমরা অপরাধী বা দোষী মনে করি তাদের মধ্যে কেউ কেউ প্রতারণার শিকার হয়ে দোষী এবং দেনাদার হয়ে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে পাওনাদারের হুমকি ধামকিতে নিরাপত্তাহীন হয়ে নির্ঘুম ভাবে জীবন যাপন করে থাকেন। তেমনি চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটি এলাকার ৪ নং রোডের হারুন হাইটসের ২৪ নং ফ্ল্যাটের বাসিন্দা মোঃ মাহবুব উল আলম চৌধুরী নামের এক ব্যক্তির প্রতারণার শিকারে নিঃশ্ব হয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন পাঁচলাইশ থানাধীন বিবিরহাট এলাকার খ্রিস্টান সেমেট্রি রোডের আনোয়ারা মঞ্জিলের বাসিন্দা হোসনে আরা পারুল। প্রতারণা, হুমকি ধামকি, হামলা মামলা ও নির্যাতনের বিষয়ে মাহবুব উল আলম নামের ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে আদালতে বহু মামলা থাকা সত্বেও এখনো পর্যন্ত পাওনা পরিশোধ না করে উল্টো হুমকি ও সন্ত্রাসী হামলার ভয়ভীতি প্রর্দশন করায় তার বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার বরাবরে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী হোসনে আরা পারুল।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মোঃ মাহবুব উল আলমের সাথে হোসনে আরা পারুলের শ্বশুর বাড়ির লোকদের পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে পরিচয়। পরিচয়ের একপর্যায়ে মাহবুবের ক্রয়কৃত জমি ঢাকার বসুধা বির্ল্ডাস লিমিটেড কর্তৃক চট্টগ্রাম বসুধা রেলওয়ে মেনস সিটি সেন্টার অফিসের নিয়ন্ত্রণাধীন ১০ম তলা নির্মিত বহুতল একাধিক ভবনের অধিকারী হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর তার প্রাপ্য অংশ থেকে ১২০০ স্কয়ার ফিটের একটি ফ্ল্যাট প্রতি স্কয়ার ফিট ২৩০০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করে পারুলের কাছ থেকে ধপে ধপে ৪৫ লক্ষ টাকা নগদে গ্রহণ করে এবং ২০১৫ সালের মধ্যে ফ্ল্যাট বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বলে, ২০১০ সালের ৩১ অক্টোবরে পারুল আর মাহবুবের মধ্যে একটি চুক্তিনামা সম্পাদিত হয়। পরবর্তীতে ২০১৫ সালে চুক্তিনামা মোতাবেক মাহবুব পারুলকে ফ্ল্যাট বুঝিয়ে দিতে না পারলে তার সাথে বার বার যোগাযোগ করা স্বত্বেও সে আজ নয় কাল এভাবে বলে বলে কালক্ষেপণ করিতে থাকে। এমতাবস্থায় ২০১৭ সাল পর্যন্ত মাহবুব যখন পারুলকে ফ্ল্যাট বুঝিয়ে দিতে পারছিলেন না, তখন পারুল মাহবুবকে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে। এক পর্যায়ে ২০১৮ সালের ১লা জানুয়ারি নগরীর অক্সিজেন এলাকার সাউথ ইস্ট ব্যাংক শাখার ৪৫ লক্ষ টাকার একটি চেক প্রদান করে মাহবুব। চেকটি পারুল যথা সময়ে ব্যাংককে জমা করলে মাহবুবের একাউন্টে টাকা না থাকায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ মাহাবুবের সাথে কথা বলে চেকটি পারুলকে ফেরত দেন। বিষয়টি নিয়ে পারুল মাহবুবের সাথে যোগাযোগ করলে মাহাবুব পারুলের কাছে সময় চেয়ে নেন এবং পারুল যাতে তার বিরুদ্ধে আইনি কোনো পদক্ষেপ নিতে না পারে কৌশলে সে সময়টুকু মাহবুব অতিবাহিত করেন।অভিযোগে আরও জানা যায়, ২০১৯ সালের ২ এপ্রিল বায়েজিদ থানাধীন, ২২১ ফকিরটিলা, চৌধুরী ট্রেডিং নামের একটি অফিসে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে পারুলকে ডেকে নিয়ে যায় মাহবুব। পারুল ওই অফিসে যাওয়ার পর মাহবুব তাকে বলে, ” তুই আমার কাছে কিসের টাকা পাবি” একথা বলার সাথে সাথে মাহবুব পারুলকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে পারুল, সেলিনা এবং তার সাথে থাকা সাইফুল নামের পারুলের এক আত্নীয়কেসহ মাহবুব সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালালে এসময় আশপাশের লোকজন থানায় খবর দিলে পারুল, সেলিনা, সাইফুলকে তাদের হাত থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারের পর মাহবুবের বিরুদ্ধে পারুল বায়েজিদ থানা মামলা নং- (৪) দায়ের করে এবং ২০১৯ সালের ৩ এপ্রিল মাহবুবকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরবর্তীতে মাহবুবের আইনজীবীর অনুরোধে মাহবুব টাকা পরিশোধ করিবে এমন শর্ত সাপেক্ষে পারুলকে দিয়ে তার জামিনের ব্যবস্থা করলেও টাকা পরিশোধতো দূরের কথা জামিনে এসে মাহবুব পারুলের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। এমনকি তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ যোগসাজশে পারুলের দায়ের করা মামলায় পারুলের বিরুদ্ধে চুডান্ত মিথ্যা প্রতিবেদন দাখিল করায় এবং পারুলকে মাহবুবের সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা হত্যার হুমকি সহ একাধিক মিথ্যা মামলার অভিযোগে জড়াতে থাকে বলে জানা যায়। এতে পারুল নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়লে মাহবুবের বিরুদ্ধে ২০২১ সালের ১৬ মার্চ মাননীয় চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি সি. আর. মামলা নং-১৪৪/২০২১ দায়ের করিলে আদালত মাহবুবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন। বিষটি জানার পর মাহাবুব আবারও তার আইনজীবী ও সমাজের গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করিবে মর্মে একটি আপোষনামা সম্পাদন করে ৪৫ লক্ষ টাকার মধ্যে ৩ লক্ষ টাকা প্রদান করে পারুলকে। এর পর মাহবুবের কাছে থেকে টাকা চাইতে গেলে সে আবারও বার বার সময় অতিবাহিত করতে থাকে এবং আজ পর্যন্ত কোনো টাকা পরিশোধ না করে পারুলকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানী ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা সহ সন্ত্রাসী হামলার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছে মাহবুব।পরে মাহবুবুবের বিরুদ্ধে পারুল আরো দুইটি মামলা ( নারী শিশু মামলা নং- ১৭৮/২১ ও ৯৮ সি আর পি সি মামলা নং- ৫২৩/২১ দায়ের করেন বলে জানা যায়।

এতে আরও জানা যায়, নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন হিলভিউ আবাসিক এলাকার রোড নং ২, ও বাসা নং ৩৮ এর সুলতান মাহমুদ ফয়সাল নামের এক ব্যক্তি পারুলের সাথে পরিচয়ের সূত্র ধরে মাহবুবের কাছ থেকে টাকা উদ্ধারের কথা বলে পারুলের কাছ থেকে ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে যায়। এর পর যখন ফয়সাল মাহবুবের কাছ থেকে টাকা উদ্ধার করে দিতে পারেনি, তখন পারুল খোঁজ নিয়ে জানতে পারে ফয়সাল মাহবুবের লোক। পরে উদ্ধার করে দেওয়ার কথা বলে পারুল থেকে যে টাকা নিয়েছে তা ফয়সালের কাছ থেকে ফেরত চাইলে, টাকা ফেরত না দিয়ে উল্টো সন্ত্রাসী হামলা এবং হত্যার হুমকি দিতে থাকে বলে জানা যায়। পরে পারুল নিরাপত্তার কথা ভেবে ফয়সালের বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ থানায় ২০২২ সালের ২০ আগষ্টের একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করে যাহার জিডি নং-৬০১। যাহা এখনো পর্যন্ত কোনো প্রতিকার পাওয়া সম্ভব হয়নি বলে উল্লেখ করা হয় অভিযোগে।

অভিযোগের বিষয় জানতে চাইলে ভুক্তভোগী হোসনে আরা পারুল বলেন, আমার আমেরিকা প্রবাসী ভাশুর আমার শ্বাশুরির নামের সম্পত্তি একাই ভোগ দখল করার কুমানসে ২০০৬ সালের ডিসেম্বর মাসে ১৪০৮৬ নাম্বার একটি জাল হেবানামা দলিল সৃজন করে, বিষয়টি আমার শ্বাশুরি জানার পরে নিজ সন্তানের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ২০ মে হেবা বাতিলের একটি মামলা দায়ের করেন, যাহার মামলা নং- ২৪০/২০০৮। পরবর্তীতে আমার শ্বাশুরি মৃত্যু পূর্বে ওই মামলা পরিচালনায় আমোক্তার নামা মূলে আমাকে দায়িত্ব অর্পণ করে যান। আমাকে দায়িত্ব অর্পণের পর আমাদের পরিবারে বিবাদের সৃষ্টি হয়। বিবাদ সৃষ্টির সূত্র ধরে মাহবুবের সাথে আমার স্বামীর পরিচয় হয়। মাহবুব সামাজিক বিচারের মাধ্যমে এবং প্রশাসন দিয়ে ন্যায় বিচারের মাধ্যমে আমার শাশুড়ীর সম্পত্তি আমাদের ওয়ারিশদের মাঝে বন্টন করার আশ্বাস দিলে আমার স্বামী, মাহবুবকে স্থানীয় আব্বাসের মাধ্যমে আমাদের বাসায় নিয়ে আসে। মাহাবুব মিথ্যা প্রলোভনে কৌশলে আমার স্বামী, আমি, আমার শাশুড়ী, আমার বাবা মা সহ আনোয়ারা মঞ্জিলের ভাড়াটিয়াদের থেকে তার জায়গার উপর এপার্টমেন্ট দিবে বলে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় এবং তার প্রতারণার বিষয়টি আমরা বুঝতে পারি। একটু সুখের আশায়, দুই সন্তানের লেখা পড়া, মামলা মোকদ্দমা পরিচালনা করার লক্ষ্যে, আরো বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ধারদেনা করে তাকে আমি পুঁজি হিসেবে এসব টাকা দিয়েছিলাম। আমি যে নারী মানুষের বিপদে, এলাকার গরীব অসহায়দের সব সময় সাহায্য সহানুভূতিতে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছি, আজ আমি নিজেই বড় অসহায়। আমি সহায় সম্বল হারিয়ে ঋণগ্রস্থ হয়ে বর্তমানে এসব ঋণের বোঝা টানতে আমার হিমশিম খেতে হচ্ছে। এমনকি পাওনাদারের পাওনা পরিশোধ করতে না পেরে দুই সন্তান নিয়ে পাওনাদারের হুমকির শিকার হয়ে নিরাপত্তাহীন ভাবে জীবন যাপন করছি। আমি একজন নারী হয়ে তাদের কাছে কোনো ভাবে নিরাপদ নই। আমি একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী হিসেবে সুস্থ, সুন্দর ও সন্তানদের নিয়ে নিরাপদ জীবন যাপন করার লক্ষ্যে, এসব প্রতারকদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করছি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে মোঃ মাহবুবুল আলমের সাথে মুঠোফোনে বার বার যোগাযোগ করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। অন্যদিকে সুলতান মাহমুদ ফয়সাল অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, হোসনে আরা পারুলকে আমি চিনি, তবে তিনি আমার বিরুদ্ধে টাকার যে অভিযোগ করেছেন তা সঠিক নয়। আমি কেন ওনার কাছ থেকে টাকা উদ্ধারের কথা বলে টাকা নেবো, টাকা নেওয়ারতো প্রশ্নই আসেনা। আর উনি যেটা বলেছেন, আমি মাহবুবুল আলমের লোক সেটাও ঠিক নয়। আমি মাহবুবুল আলমকে চিনি কিন্তু তার সাথে আমার কোনো সম্পর্ক নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Shakil IT Park