1. admin@bbcnews24.news : admin :
পটুয়াখালীতে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি - BBC NEWS 24
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:০৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নান্দাইলে কলেজ ছাত্র বাপ্পি হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট অগ্রণী ব্যাংক সিলেট অঞ্চলের কমিটি গঠন সাধারণ সম্পাদক হালুয়াঘাটের আশরাফুল কবিতা- আত্নহত্যা শেরপুর সরকারি কলেজে ওরিয়েন্টেশন ক্লাস অনুষ্ঠিত সাবেক ছাত্রনেতা জানে আলম রোমেন এর ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সেবক” চট্টগ্রাম জেলা শাখা কতৃক ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ সনদপত্র বিতরণ সীতাকুণ্ডে পাঁচ হাজার টাকার জন‍্য চালক হত‍্যা উত্তরায় শীতবস্ত্র বিতরণে ৫২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সালাম ও সম্পাদক নজরুল

পটুয়াখালীতে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর, ২০২১
  • ২০৯ বার পঠিত

মোঃইমরান হোসেন,পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃপটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে সাংবাদিক পরিচয়ে একটি বিদ্যালয় থেকে মোটা অঙ্কের চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার সুবিদখালী বাজারের মোঃ আল-আমিন প্রিন্স নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সুবিদখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বিদ্যালয়টির ভবনের সংস্কার কাজের সময় বঙ্গবন্ধুর ছবিতে রং লেগে যায়। এতে কর্তৃপক্ষ ছবিটি নামিয়ে রাখে। এ খবর পেয়ে প্রিন্স বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষককের কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে।

ওই বিদ্যালয়ের কিছু পরিত্যক্ত কাঠ মাঠে পড়ে থাকলে ৯ বছরের একটি শিশু তা বাড়িতে নিয়ে যায়। এতে প্রিন্স ওই শিশুটির বাড়ি গিয়ে পরিবারের লোকজনকে ভয় দেখিয়ে তাদের কাছে ও চাঁদা দাবি করে।

শিশুটির চাচা জানান, মাঠ থেকে কিছু পুরাতন কাঠ আমার ভাতিজা বাড়ি নিয়ে আসে। এ কারণে প্রিন্স নামে একজন লোক সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আমাদের কাছে বিশ হাজার টাকা জরিমানা চায়। জরিমানা না দিলে ১৪ বছরের জেল দিবে এবং টিভিতে দেখাবে বলে হুমকি দেন। আমরা ভয় পেয়ে ধারকর্জ করে তাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েছি। কিন্তু জরিমানার কোন রিসিট সে দেয়নি।

উত্তর সুবিদখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসাঃ ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ওই কাঠগুলো নষ্ট হয়ে গেছিলো। এছাড়া বিদ্যালয়ে রং করানোর সময় বঙ্গবন্ধুর ছবিতে রং লেগে গেলে ছবিটি নামিয়ে নতুন ছবি বানাতে দেই। কিন্তু এঘটনায় প্রিন্স নামের একজন বিদ্যালয়ে এসে আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে সে পুলিশসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায়।

এতে ভিত হয়ে তাকে পাঁচ হাজার টাকা চাঁদা দিয়েছি। অভিযুক্ত আল আমিন প্রিন্সের সাথে যোগাযোগ করলে সে বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, বিষয়টি আমি দেখতেছি।
উল্লেখ, গত ১৩ই অক্টোবর শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে আলমিন ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়। এতে তার স্ত্রী মির্জাগঞ্জ পল্লী বিদ্যু অফিসের বিলিং সহকারী মোসাঃ হোসনেয়ারাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠান পুলিশ। যার প্রধান আসামি ছিলেন প্রিন্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Shakil IT Park