1. admin@bbcnews24.news : admin :
মানিক হাজীর অদৃশ্য ক্ষমতার কাছে জিম্মি এলাকাবাসী ~ BBC NEWS 24
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

মানিক হাজীর অদৃশ্য ক্ষমতার কাছে জিম্মি এলাকাবাসী

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১১৫ বার পঠিত

মাহবুব আলম (মানিক)আশুলিয়া ঢাকাঃ আশুলিয়ার বাইপাইলে ক্ষমতার দাপটে চলাচলের রাস্তায় হোটেল তৈরি করে জন সাধারনের চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন মানিক হাজী নামে এক ক্ষমতাবান ব্যাক্তি। জানা যায় আশুলিয়া থানাধীন বাইপাইল মৌজাস্থিত বুড়িরবাজার মেইন রোড সংলগ্ন সাব রোডে বি আর এস ৪৫৭৭, ৪৫৭৫, এবং ৪৫৭৬ দাগের রেকর্ডিয় রাস্তাটির উপর খাবার হোটেল বানিয়ে রাস্তাটি দখল করে রেখেছেন মানিক হাজি। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সংবাদকর্মীরা সরজমিনে গেলে দেখেন ভিন্নচিত্র। শুধু হোটেল নয় দখলকৃত রাস্তারটির মধ্যে পায়েহেটে চলারমত যায়গা টুকুও বাশ ও ইট দিয়ে বন্ধ করে তৈরি করছেন বহুতল ভবন। এতে বন্দি হয়ে পরেছেন কয়েকটি পরিবার ও বাড়ির মালিকেরা।

বন্দি হয়ে পরা পরিবারের লোকজন বলেন আমাদের বাড়ি থেকে বের হয়ে হাটাচলার এটাই একমাত্র রাস্তা আর এই রাস্তটির উপর মানিক হাজি খাবার হোটেল বানিয়ে ভাড়া দিয়েছেন এবং কি আমাদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার যায়গাটিও বেড়া দিয়ে বন্ধ করে রেখেছেন তার ভবন নির্মান কাজের জন্য।

খোজ নিয়ে আরো জানা যায় ভুক্তভোগী ফিরোজ কবির গত ২৪/০৮ /২০২১ ইং তারিখে রাস্তা দখলকারী মানিক হাজির বিরুদ্ধে ও রাস্তায় অবৈধ ভাবে নির্মাণ কাজের যন্ত্রপাতি ও রড সিমেন্ট রাখার কারনে সাভার ক্যান্টেনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসারের কার্যালয় বরাবর অভিযোগ পত্র জমা দেন। তারাই ধারাবাহিকতায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সত্যতা পাওয়ায় গত ০৬/০৯/২০২১ ইং তারিখে অবৈধ ভাবে চলমান নির্মাণাধীন কাজ বন্ধের নোটিশ প্রদান করেন ক্যান্টেনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার (উপ- সচিব) সোহেলি লায়লা।

তাতেও কোন প্রতিকার পাননি এলাবাসি এর পর এক এক করে কয়েকটি অভিযোগ দায়ের করেন থানা ও এসিলেন্ট অফিস বরাবর। তাতেও তার নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে পারেনি কেউ উদ্ধার করতে পারেনি দখলকৃত রাস্তা। এলাকাবাসি বলেন শুধু জমি ও রাস্তাঘাট দখলেই নয় মানিক হাজীর বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক নারী কেলেংকারী মামলা ও অভিযোগ। শুধু তাই নয় তার একাধিক গার্মেন্টস ফ্যাক্টরী ও রয়েছে এলাকায়। সেই ফ্যাক্টরীর নামেও রয়েছে শিশু শ্রম শ্রমআইন লঙ্ঘনের ডজন ডজন অভিযোগ। কিছুদিন আগেও টেস্টিম গার্মেন্টস নামক একটি কারখানা সরকারের দেওয়া কঠোর লোকডাউনে খোলা রাখার দ্বায়ে জরিমানা করেছেন এক্সিকিউটিভ মেজিস্ট্রেট। জাহিদ হাসান প্রিন্স। এতকিছুর পরও থেমে থাকেননি তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন একের পর এক অপকর্ম। কোন এক অদৃশ্য শক্তিতেই তিনি এরকম অপকর্মের জাল বিছিয়েছেন এলাকায়। আইন ও যেন তার কাছে জিম্মি।

সকল বিষয়ে অভিযুক্ত মানিক হাজীর সাথে সাক্ষাতে কথা বললে তিনি রাগান্বিত হয়ে বলেন আমি তাদের জন্য বিকল্প রাস্তা করে দিয়েছি। সেই রাস্তা দিয়ে চলাচল করুক না করলে কিছু করার নাই।

তার এহেন কর্মকান্ডের দ্রুত বিচার ও প্রতিকারের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD