1. admin@bbcnews24.news : admin :
শেরপুরে আদালত থেকে হাতকড়াসহ পালাতক আসামী ৩ ঘণ্টা পর গ্রেফতার - BBC NEWS 24
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বাকলিয়ায় বাড়ীর ছাদ থেকে পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু নান্দাইলে প্রতিবন্ধী রিমার নিকট হুইল চেয়ার ও উপহার সামগ্রী হস্তান্তর রেল পোষ্য সোসাইটি আইনি নোটিশ দিল রেল কতৃপক্ষকে ব্রহ্মপুত্র ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে চেয়ারম্যান – সুরুজ মাষ্টার মিরসরাই সার্কেল এএসপি লাবীব আবদুল্লাহর নেতৃত্বে সাঁড়াশি অভিযান ইয়াবা সহ আটক ৩ জাতিকে সুস্থ রাখতে ধূমপান ও তামাকমুক্ত দেশ গড়তে হবে : অতি.সচিব নগরীতে ট্রাকের ধাক্কায় মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন আহত পরিত্যক্ত মুক্তিযোদ্ধা ভবন পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান পানিবন্দীদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণে পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ

শেরপুরে আদালত থেকে হাতকড়াসহ পালাতক আসামী ৩ ঘণ্টা পর গ্রেফতার

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
  • ৬৮ বার পঠিত

ইসমাইল হোসেন,শেরপুর: শেরপুর আদালত চত্বর থেকে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাতকড়াসহ মো. আব্দুস সালাম (২৫) নামে মাদক মামলার আসামী পালিয়ে যাওয়ার পর ৩ ঘণ্টা পর ফের পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে।২১ জুন মঙ্গলবার দুপুরে তাকে সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ফকির পাড়া থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী সদর উপজেলার ইলশা গ্রামের নামাপাড়া গ্রামের মো. গুঞ্জন আলীর ছেলে।পুলিশ ও মামলার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৯ জুন রবিবার বিকেলে ২৪ গ্রাম হেরোইনসহ আব্দুস সালামকে র‍্যাব-১৪ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শেরপুর সদর উপজেলার জঙ্গলদী আমতলা চৌরাস্তা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। পরে র‍্যাব-১৪ তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করে শেরপুর সদর থানায় সোর্পদ করে। পরে থানা পুলিশ তার বিরুদ্ধে ২১ জুন রিমান্ড শুনানীর জন্য আদালতে হাজির করলে আদালত চত্বর থেকে কর্তব্যরত পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাতকড়া পড়া অবস্থাতেই পালিয়ে যায়।পরে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুর আহম্মেদ ও আদালতের পুলিশ পরিদর্শকের সাড়াশি অভিযানে ৩ ঘণ্টা পর ফের গ্রেফতার করে।এ বিষয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া বলেন, সালাম পালানোর পরপরই আমরা অভিযানে নামি। পালানোর ৩ ঘণ্টার মধ্যেই তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। এ ঘটনায় কারো গাফিলতি রয়েছে কী না সেজন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। কারো গাফিলতি প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা নেয়ার সুপারিশ করা হবে বলে তিনি জানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD