1. admin@bbcnews24.news : admin :
সখীপুরে লেবু বাগান ফিরে পেতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের সংবাদ সম্মেলন ~ BBC NEWS 24
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

সখীপুরে লেবু বাগান ফিরে পেতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের সংবাদ সম্মেলন

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৬ বার পঠিত

আলমগীর হোসেন সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুরে লেবু বাগান ফিরে পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান লেবু চাষী মােঃ মােফাজ্জল হােসেন, তিনি উপজেলার কচুয়া গ্রামের মৃত বীরমুক্তিযোদ্ধা আ: বাছেদ ওরফে বাচ্চু মিয়ার ছেলে। শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকাল পাঁচটায় সখিপুর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার লীজকৃত ২১০ শতাংশ জমিতে ১ হাজার ৫০০শত লেবু গাছ আছে। এই লীজকৃত জমির সমস্যার সৃষ্টি হওয়ায় আজ আমি আপনাদের মাঝে দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়ে হাজির হয়েছি। উপজেলা কচুয়া গ্রামের ১। দেওয়ান মােজাম্মেল হক ২। দেওয়ান সুজাত আলী ৩।

দেওয়ান আঃ জব্বার ৪। দেওয়ান হযরত আলী ও ৫। দেওয়ান শওকত সর্ব পিতা মৃত দেওয়ান দুলাল উদ্দিন সাং কচুয়া দেওয়ানবাড়ী। এরা ৫ ভাই মিলে আমাকে লেবু বাগান সৃজনের জন্য ৫ বছর মেয়াদে ২১০ শতাংশ জমি যার এস.এ দাগনং ২৭৩৮,বি.এস.দাগ,৩৭৩৬ কান্দা লীজ দেওয়া হয় এই মর্মে ৫ বছর পর আবার পুনরায় ৫ বছর লীজ বৃদ্ধি করা হবে। জমিটি রেকর্ডকৃত বলে লীজ দেওয়া হলেও পরবর্তীতে জানতে পারি তা বনভুমির জমি। উক্ত জমিতে লেবু বাগান সৃজন করার ৫ বছর পর পুনরায় ৫ বছরের জন্য নবায়ন করতে গেলে তারা জানায় লীজকৃত উক্ত জমির ৬০ শতাংশ জমি আবু হানিফের নিকট বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। এখন আর নবায়ন করা সম্ভব নয়।

এ বিষয়ে বিভিন্ন শালিস দরবার করার পর তাদের সিদ্ধান্ত মােতাবেক ১১০ শতাংশ জমি পুনরায় ৫ বছরের জন্য তারা নবায়ন করে দিয়েছে। বাকী ১০০ শতাংশ জমিতে সৃজিত লেবু গাছ কেটে ফেলার জন্য তারা পায়তারা করছে এবং আমার জান্নাতুল লেমন গার্ডেন এর সাইনবাের্ড ভেঙ্গে ফেলে দিয়ে দেওয়ান লেমন গার্ডেন এর সাইনবাের্ড টাঙ্গিয়ে দিয়েছে। এমনকি বিভিন্ন মাধ্যমে আমাকে প্রাণ নাশের হুমকী দিচ্ছে এবং বাগানটি জোর পূর্বক জবর দখল করেছে।

ফলে আমি লাখ লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছি। লেবু বাগানটি বেদখল করে তারা বস্তায় বস্তায় লেবু তুলে বিক্রি করে দিচ্ছে। তাদের লেবু বাগান সম্পর্কে সম্যক ধারনা না থাকায় লেবু তুলতে গিয়ে বাগান বিনষ্ট করছে ও বাগান থেকে সময়মত লেবু না তুলার কারণে অধিকাংশ লেবু পেঁকে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। আমি উপায়ান্তর না পেয়ে বাগান রক্ষার্থে মােকাম টাঙ্গাইলের অতিঃ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি (মােকদ্দমানং ৪৫৯/২০২১ ধারা ফৌঃ কার্যঃ আইনের ১৪৪ ধারা) এবং মােকাম টাঙ্গাইলের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট
খ-অঞ্চল আদালতে একটি (মােকদ্দমা নং ৬০৫/২০২১ ধারা ফৌঃ কার্যঃ আইনের ১০৭/১১৭(গ) ২টি মামলা দায়ের করেছি। আমি ধার-দেনা করে ঋণগ্রস্থ হয়ে উক্ত জমিতে ১ হাজার ৫০০শত লেবু গাছ সৃজন করেছি। আমার গাছ প্রতি ২০০০/-টাকা খরচ হয়েছে।

এতে মােট খরচ হয়েছে ৩০ লাখ টাকা। বর্তমানে গাছে ফলন আসা শুরু হয়েছে। এ ছাড়া লেবু বাগানে ৫০ হাজার কলম দেওয়া হয়েছে,যার মূল্য প্রায় ৬ লাখ টাকা। আগামী ৫ বছর নিয়মিত ফলন আসলে এবং প্রাকৃতিক দূর্যোগের সম্মুখিন না হলে আমি ঋণ পরিশােধ করে লাভবান হতে পারবাে। কৃষি বান্ধব বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রান্তিক পর্যায়ে কৃষি উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন ভাবে উৎসাহিত করছেন। আমি একজন বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তান। আমি আপনাদের মাধ্যমে আমার প্রতি এ অবিচারের জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আমার লেবু বাগানের ক্ষতি হলে আমি নিঃশ্ব হয়ে পথে বসে যাবো, তখন আমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না।

প্রিয়, সাংবাদিক ভাইয়েরা, আমি তেমন লেখা পড়া করতে পারি নাই। কাগজ পত্র সম্পর্কে কোন ধারণা
নাই। দেওয়ান বাড়ীর লােকজনের প্রতি আমার বিশ্বাস থাকায় তারা যে ভাবে বলেছে, সে ভাবেই বিশ্বাস করে কাজ করেছি। পরবর্তীতে জানতে পারি ৩৭৩৬ দাগে বন বিভাগের জমি রয়েছে প্রায় ৮শত শতাংশ। আমাকে সহজ সরল, অসহায় ও অশিক্ষিত পেয়ে বন বিভাগের জমিকে রেকর্ড বলে তারা আমার সাথে প্রতারনা করেছে।

উপস্থিত সাংবাদিক ভাইয়েরা, আপনারা জাতির বিবেক, আপনারা সব সময় অসহায়, দরিদ্র, নির্যাতিত, নিষ্পেষিত ব্যক্তির পক্ষে ও অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে কাজ করে থাকেন। টাকার নিকট কখনাে বিক্রি হন না। দেওয়ান বাড়ীর লােকজন টাকার বিনিময়ে এলাকার মাতাব্বরদের ক্রয় করে ফেলেছে। এখন আপনারাই আমার আশা ভরসা। আমার বিশ্বাস আমার প্রানের চেয়ে প্রিয় সন্তান তুল্য লেবু বাগানটি রক্ষা করে আমাকে আত্মহত্যার পথ রােধ করবেন।

এসময় রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মো. শরিফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল সহ বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিকস ও অনলাইন সংবাদ মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD