1. admin@bbcnews24.news : admin :
১৬শ ২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে যশোর-সাতক্ষীরা রেলপথ - BBC NEWS 24
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বকশীগঞ্জ বিপুল সংখ্যক কর্মীসমর্থক নিয়ে লিফলেট বিতরণ করেন -মেয়র নজরুল পরিকল্পনা মন্ত্রীর নির্দেশে নান্দাইলে যানজট নিরসনে উচ্ছেদ হচ্ছে অবৈধ স্থাপনা সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে আ.লীগ নেতাকর্মীদের সাথে আনন্দ উৎসব ও মতবিনিময় মেলান্দহে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড আয়োজনে মতবিনিয়ন সভা অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান এর মতবিনিময় ভালুকায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অফিসে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ মিরসরাইয়ে দুই ইটভাটাকে সাড়ে ৯ লাখ টাকা জরিমানা ভালো বই যে কোন সময় যে কোন মানুষকে আমূল বদল দিতে পারে : আর.সি.পাল শেরপুরে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ১৯ শিক্ষককে অব্যাহতি, ২০ পরীক্ষার্থী বহিস্কার

১৬শ ২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হবে যশোর-সাতক্ষীরা রেলপথ

বিবিসি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • সময় : শনিবার, ২৯ মে, ২০২১
  • ৩৪২ বার পঠিত

সাতক্ষীরা থেকে আব্দুর রহিম: ঢাকার সঙ্গে সাতক্ষীরা জেলার রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন।সাতক্ষীরা জেলায় প্রায় ২২ লক্ষ মানুষের বসবাস।এ জেলা থেকে দেশের অন্যান্য স্থানে যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম সড়ক পথ।

সুন্দরবন, চিংড়ি সম্পদ এবং ভারত বাংলাদেশ আমদানি রপ্তানি(ভোমরা স্থল বন্দর) বাণিজ্য-অর্থনৈতিক ভাবে ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।এসব কারণে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে একমাত্র সড়ক পথটি ব্যস্ত হয়ে পড়েছে।

বর্তমান সরকার সাতক্ষীরা বাসীর কথা চিন্তা করে যশোরের শার্শার নাভারন থেকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ করার পরিকল্পনা করছে।প্রকল্পের মোট প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ৬৬২ কোটি ২৪ লাখ টাকা।এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৩৩২ কোটি ৪৪ লাখ টাকা।কন্সট্রাকশন অব নিউবিজি ট্র্যাকফর্ম নাভারন টু সাতক্ষীরা প্রকল্পের আওতায় ১ হাজার ৩২৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা চীনের কাছ থেকে ঋণ চাওয়া হয়েছে।

প্রকল্পটির মেয়াদ কাল ধরা হয়েছে চলতি সময় থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত।নাভারন থেকে মুন্সিগঞ্জ গ্যারেজ পর্যন্ত রেল পথের মোট দৈর্ঘ্য ৯৮ দশমিক ৪২ কিলোমিটার।২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে বরাদ্দ বিহীন নতুন প্রকল্প তালিকায় এটা রাখা হচ্ছে।রেলপথ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়,প্রকল্পটি বাস্তবায়নের ফলে ট্রেনে চড়ে যাওয়া যাবে শ্যামনগরের মুন্সিগঞ্জ পয়েন্টে।

সেখান থেকে একটা নদী পার হলেই সুন্দরবন।
সুন্দরবনের উদ্ভিদ ও প্রাণীর বৈচিত্রের কথা ভেবেই সুন্দরবনের ১০ কিলোমিটার দূরত্বের আগেই ট্রেন স্টেশন শেষ হবে।

যশোরের নাভারন থেকে সাতক্ষীরার মুন্সিগঞ্জ পর্যন্ত থাকবে ৮টি স্টেশন।এগুলো হলো-নাভারণ,বাগআচড়া,কলারোয়া, সাতক্ষীরা, কালিগঞ্জ, শ্যামনগর ও মুন্সিগঞ্জ।

একই সঙ্গে রেলপথের সেতু নির্মিত হবে বাকাল, লাবণ্যবতী, সাপমারা খাল ও কাকশিয়ালী নদীর উপর।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম প্রধান আ ন ম আজিজুল হক বলেন,

সুন্দরবনের সঙ্গে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আরও শক্তিশালী করার জন্য এই প্রকল্পটি হাতে নেওয়া হয়েছে।

প্রকল্পের কাজ প্রাথমিক অবস্থায় আছে।
নাভারন থেকে সাতক্ষীরা হয়ে মুন্সিগঞ্জ পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ করা গেলে অর্থনৈতিক ভাবে এলাকা গুলো শক্তিশালী হবে।

তিনি আরো বলেন,নতুন রেলপথ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

রেলপথ নির্মাণে চীনসহ কয়েকটি উন্নয়ন সহযোগী খোঁজা হচ্ছে সুবিধামতো যার সঙ্গে মিলবে তাকেই এই প্রকল্পের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে নেওয়া হবে।

রিপোর্ট,
আব্দুর রহিম
সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি মোবাইল নং-০১৮৫৭-৮২৭৬২৭/০১৯১২-৭২৩০০৫.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিবিসি নিউজ ২৪
Theme Customized BY Shakil IT Park